৩রা শ্রাবণ, ১৪২৬ বঙ্গাব্দ
বৃহস্পতিবার , জুলাই ১৮ ২০১৯
Breaking News
Home / এনটআরসিএ / নিবন্ধন সনদধারীর জন্য মহাখুশির সংবাদঃ

নিবন্ধন সনদধারীর জন্য মহাখুশির সংবাদঃ

নিজস্ব প্রতিবেদকঃ দীর্ঘদিন বেসিরকারি শিক্ষক নিয়োগ বন্ধ থাকার পর এ মাসের মধ্যেই এনটিআরসিএ নিয়োগ পক্রিয়া শুরু করবে বলে নিশ্চিত হওয়া গেছে। তাই এ মাসের যে কোন সময় গণ বিজ্ঞপ্তি প্রকাশ হওয়ার কথা আর যদি কোন কারণে এ মাসে গণ বিজ্ঞপ্তি না হয় তাহলে আগামি মাসের প্রথম সপ্তাহে গণ বিজ্ঞপ্তি প্রকাশ হবেই। আর এ বছরই নিয়োগ কার্যক্রুম সম্পর্ণ করা হবে।

তাই এ সংবাদ  নিবন্ধন সনদধারীর জন্য মহাখুশির সংবাদঃ
১=নিয়োগ প্রক্রিয়া ২০ দিনের মধ্যেই শুরু হবে।
২=জাতীয় মেধাক্রম অনুযায়ী নিয়োগ হবে।
৩=যারা চাকরি পেয়েছে,মারা গেছে,চাকরি করতে ইচ্ছুক নয় অথচ নিবন্ধন সনদ আছে
তাদের মেরিট লিস্ট থেকে বাদ দেওয়া হবে।
৪=সনদ প্রাপ্ত সকলের চাকরি হবে না,কেবল লিখিত৫০ প্লাস নাম্বারধারির চাকরি হবে,,৪০-৪৯ নাম্বার হওয়া সত্ত্বেও যারা রিট করেছে তাদের বিবেচনায় রাখা হবে।

৫=তবে বাংলাদেশের কোথাও লিখিত ৫০ + নাম্বারধারী নাপাওয়া সাপেক্ষে তাদের অথাৎ ৪০-৪৯ নাম্বারধারীর নিয়োগ হবে। এ নিয়ম কেবল ১৪ও ১৫ তম নিয়োগের আগে বলবৎ থাকবে।
৬=চাকরি প্রত্যাশি হলে এন টি আর সি এ এর নির্দিষ্ট ওয়েব সাইটে প্রাথমিক আবেদন করতে হবে।

৭=প্রাথমিক আবেদন করেই চুড়ান্ত নিয়োগ প্রক্রিয়া সম্পূর্ণ হবে। (কে চাকরি প্রত্যাশি আর কে নয় তা পৃথক করায় আলোচ্য আবেদনের উদ্দেশ্যে)।
৮=নির্দিষ্ট পদ বাংলাদেশের কোথাও না পাওয়া গেলে তাকে ২ য় মেরিট লিস্ট পর্যন্ত অপেক্ষা করতে হবে।

৯=এ নিয়োগ প্রক্রিয়া কেবল ২০১৯ সালের ডিসেম্বর পর্যন্ত বলবৎ থাকবে,এ সময়ের মধ্যে ৩ বার মেরিট লিস্ট হবে।

১০=একই নাম্বার ধারী একাধিক ব্যাক্তি থাকা সাপেক্ষে একাডেমিক সনদ বিবেচনায় আনা হবে,,তাতেও সমান হলে নির্দিষ্ট শর্তমেনে নিয়োগ দেয়া হবে।

১১=যারা লিখিত৫০ প্লাস নাম্বার প্রাপ্ত অথচ ৩ মেরিটের কোনো মেরিটেই নাম না আসা সাপেক্ষে তারা পরের বছরের মেরিটে ১৪ ও ১৫ তমদের সাথে আবেদন করবে এবং তাদের নিয়োগ ১৪ও১৫
তমদের চেয়ে অগ্রাধিকার পাবে।
১২=কিন্তু ১৪ তম থেকে শুধু মাত্র সর্বোচ্চ নাম্বারধারীর নিয়োগ হবে।।
১৩=কেবল আন্ডার ৩৫ তমদের চাকরির জন্য সুপারিশ প্রাপ্ত হবে।

১৪=জাতীয় মেধা তালিকা করায় বাংলাদেশের যে কোনো জায়গায় নিয়োগ হবে,তবে নির্দিষ্ট শর্ত মেনে নিজ এলাকায় পদ ফাকা বা বিনিময় পদ্ধতিতে NTRCA এ বরাবর আবেদন করে প্রতিষ্ঠান পরিবর্তন করতে পারবে।
১৫=রাষ্ট্র দ্রোহী নিয়োজিত ব্যক্তি এ নিয়োগ থেকে বঞ্চিত হবে।
১৬=সরকারি বা ntrca এর অধীনে কোনো ব্যক্তির চাকরি থাকা সত্ত্বেও কেহ আবেদন করে চাকরি পেতে ইচ্ছুক হলে জাতীয় পরিচয় পত্রের মাধ্যমে সনাক্ত করে উপযুক্ত ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

তবে কেবল শুধু নিম্ন পর্যায়ের কর্মচারি বা শিক্ষক উচ্চ পদে সনদ থাকা সাপেক্ষে নির্দিষ্ট শর্ত মোতাবেক আবেদন করতে পারবে।

বি দ্রঃ প্রাথমিক আবেদন এ শুধু মাত্র রোল নাম্বার ও কততম নিবন্ধনধারি এই তথ্য লাগবে—–
এবং চূড়ান্ত নিয়োগ কার্যক্রমে যে সব কাগজ লাগবে——–
১=সকল একাডেমিক মূল সনদ ও প্রশংসা পত্র ও ৬ কপি সত্যায়িত
ফটোকপি
২=নিবন্ধন সনদ ও প্রবেশ পত্র এবং ২ কপি সত্যায়িত ফটোকপি
৩=জাতীয় পরিচয়পত্রের ফটো কপি ২ টি
৪=পাসপোর্ট সাইজের সত্যায়িত ৬ কপি ছবি।

Facebook Comments

Check Also

জতীয়করণ রুখতেই ১০% কর্তন! Dainikshikshakhobor

শিক্ষক নামধারী গুটিকয়েক অবসর প্রাপ্ত স্বার্থান্বেষি কলংকিত অসাধু শিক্ষক নেতাদের কুপরামর্শে জাতীয়করণ রুখতেই ১০% কর্তনের …

বিধিমালা জারি: প্রাথমিকে শিক্ষক হতে নারীদেরও স্নাতক পাশ হতে হবে

সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ে শিক্ষক হতে পুরুষদের পাশাপাশি এখন থেকে নারী প্রার্থীদেরও শিক্ষাগত যোগ্যতা স্নাতক হতে …

শিক্ষক নিবন্ধন পরীক্ষাঃ অনুমদোন পেল ২০ বিষয়ের নতুন সিলেবাস

সিলেবাসে শিক্ষক নিবন্ধন পরীক্ষার জন্য এনটিআরসিএ প্রণয়নকৃত ২০টি নতুন বিষয় অনুমোদন দিয়েছে শিক্ষা মন্ত্রণালয়। সোমবার …

অনুপাত প্রথা বাতিল করে পরিক্ষার মাধ্যমে সহকারী /সহযোগী অধ্যাপক পদায়ন করুন।

চাকুরীর ক্ষেত্রে পদোন্নতি একটি গুরুত্বপূর্ন বিষয়।কর্মস্পৃহা ও যোগ্যতা, অভিজ্ঞতা ও দক্ষতা মুল্যায়নে পদোন্নতি ব্যবস্থার গুরুত্ব …

Leave a Reply

Your email address will not be published.

three × two =

Skip to toolbar