৮ই জ্যৈষ্ঠ, ১৪২৬ বঙ্গাব্দ
বুধবার , মে ২২ ২০১৯
Breaking News
Home / জাতীয় / মুক্তি যুদ্ধের চেতনায় জাগতে হবে বেশিকদের!

মুক্তি যুদ্ধের চেতনায় জাগতে হবে বেশিকদের!

মুক্তি যুদ্ধের চেতনায় জাগতে হবে বেশিকদের!

হাজার বছরের শ্রেষ্ঠ বাঙালী জাতীর জনক বঙ্গ বন্ধু শেখ মুজিবের আদর্শে অনুপ্রাণিত হয়ে জেগে ওঠার সময় এসেছে বেসরকারী শিক্ষক কর্মচারীদের।বঙ্গবন্ধুর দীক্ষা ছিলো অধিকার আদায়ের দীক্ষা। নিজের অধিকার ছিনিয়ে নেওয়ার দীক্ষা। আমরা বীর বাঙালী,আমাদের আর একবার জাগতে হবে এ দেশের সকল শিক্ষা ব্যবস্থার সকল বৈষম্য রুখে দিতে

এদেশের ধ্বনি দরিদ্রের বৈষম্য দূর করার সময় এসেছে। আর ধৈর্য্য ধরার সময় নাই। এবার ধৈর্য্যের বাঁধ ভেঙেছে।আর কত অবহেলিত থাকবে এ দেশের দরিদ্র জনগোষ্ঠি? স্বাধীনতার ৪৮ বছর পেরিয়ে আজও কেনো আমরা পরাধীনতার শৃঙ্খলে আবদ্ধ থাকবো।তা হতে পারেনা, হতে দেওয়া যায় না।

শিক্ষা কি শুধু ধ্বনিক শ্রেণির জন্য? নাকি এ দেশের আপামর জন সাধারনের জন্য?যদি সকল নাগরিকের সমান অধিকার হয়, তাহলে সরকারী শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে শুধু মাত্র ধ্বনিক শ্রেণির সন্তানদের সুযোগ দেওয়া হলো কেনো?এ দেশের সকল সরকারী শিক্ষা প্রতিষ্ঠান শহর কেন্দ্রিক যেখানে বসবাস করেন সমাজের উচু শ্রেণির লোকজন। পক্ষান্তরে গ্রামে বাস করে নিম্ন শ্রেণির তথা নিম্ন আয়ের লোকজন। যেখানে আজও গড়ে ওঠেনি কোনো সরকারী মাধ্যমিক বিদ্যালয় বা কলেজ।তাহলে কি আমরা এটাই বুঝবো উচ্চ শিক্ষা শুধু উচ্চ শ্রেণির সন্তানদের জন্য? আর নিম্ন আয়ের সন্তানদের জন্য শুধুই প্রাথমিক শিক্ষা?

স্বাধীন বাংলায় কি করে তা হতে দেওয়া যায়? জাতি হিসেবে তো আমাদের ও একটা দায়বদ্ধতা আছে। ধ্বনি দরিদ্র সবার জন্য সমান ভাবে শিক্ষা ব্যবস্থার সুযোগ সৃষ্টি করে দেওয়ার। সেই দায়বদ্ধতা থেকে আসুন আমরা সবাই আর একবার ৭১ এর চেতনায় জেগে উঠি।এ দেশের সকল বৈষম্য দূর করতে নিজেদেরকে তৈরী করি।এ বৈষম্য শুধু শিক্ষকদের নয়। এ বৈষম্য সমগ্রহ জাতির, এ বৈষম্য ধ্বনি -দরিদ্রের, এ বৈষম্য শ্রমিক -মালিকের, এ বৈষম্য পেশা জীবি- আমলাদের।এই বৈষম্য দূর করতে সবার আগে প্রয়োজন সকল শিক্ষা ব্যবস্থা সরকারী করা।

তাই আসুন আমরা বঙ্গবন্ধুর সেই ৭ ই মার্চের ভাষনের শ্লোগানকে সমানে রেখে বলি!

আমাদের এবারের সংগ্রাম, বেশিক মু্ক্তির সংগ্রাম।আমাদের এবারের সংগ্রাম সকল বৈষম্য রুখে দোওয়ার সংগ্রাম।আমাদের এবারের সংগ্রাম অধিকারের সংগ্রাম।এবারের সংগ্রাম কর্তন রুখে দেওয়ার সংগ্রাম।এবারের সংগ্রাম অবসর কল্যান বোর্ডের বিলুপ্তির সংগ্রাম। এবাররের সংগ্রাম শিক্ষা জাতীয়করণের সংগ্রাম।

তাই আসুন প্রত্যেকটি প্রতিষ্ঠানে এক একটি দূর্গ গড়ে তুলি,সংগ্রামে যখন নেমেছি তখন সংগ্রাম চালিয়ে যাবো, তবুও জাতীয়করণ আদায় করেই ছাড়বো ইনশাল্লাহ।

জয় বাংলা ★★★★★ জয় বঙ্গবন্ধু।

লেখক…………
মোহাম্মদ মোকাররম হোসেন (আপন)।
সাধারন সম্পাদক,
বাংলাদেশ শিক্ষক সমিতি(নজরুল),
চট্টগ্রাম বিভাগ।ও

Check Also

ভয়ঙ্কর হারিকেনে পরিণত হয়েছে ঘূর্ণিঝড় ‘ফণী’

ঘণ্টায় ১৬ কিলোমিটার গতিতে উড়িষ্যা উপকূলের দিকে অগ্রসর হচ্ছে। এ ঘূর্ণিঝড় আগামী ২৪ ঘণ্টার মধ্যে …

অতিরিক্ত ৪% কর্তন বন্ধ সহ বিভিন্ন দাবি দাওয়া নিয়ে বেসরকারি শিক্ষা ব্যবস্থা এখন উত্তাল !!

নিজস্ব প্রতিবেদকঃ বেসরকারি শিক্ষা ব্যবস্থায় বর্তমান সময়ে চরম অবস্থা বিরাজমান। বেসরকারি শিক্ষকরা আজ অবিভাবকের সংকটে …

অতিরিক্ত ৪%কর্তন বন্ধ ও কর্তনকৃত টাকার স্বচ্ছ হিসাব চেয়ে প্রেস বিজ্ঞপ্তি-বাশিস(নজরুল)

নিজস্ব প্রতিবেদকঃ আগামী ১লা মে পুর্নাঙ্গ উতসব ভাতা, বাড়ি ভাড়া বৃদ্ধি ও অতিরিক্ত ৪% কর্তন …

জাতীয়করণ উপযোগী বাজেট চাই!

জাতীকরণ উপযোগী বাজেট চাই! আজকের আলোচনার প্রথমেই আমি আন্তরিক অভিনন্দন ও শুভেচ্ছা জানাই বাংলাদেশ সরকারের …

Leave a Reply

Your email address will not be published.

1 × four =