Tue. Jan 28th, 2020

দৈনিক শিক্ষা খবর

বেসরকারি শিক্ষা প্রতিষ্ঠান জাতীয়করণ নিয়ে ভাবনা

প্রতেক মানুষই ভাল ভাবে বেচে থাকতে চায়। জীবনের একটু নিরাপত্তা চায়। যা আছে তার চেয়ে একটি বেশি চাওয়া মানুষের স্বভাব চরিত্র। তাই আজ বাংলাদেশের বেসরকারি শিক্ষকগণ জাতীয়করণের স্বপ্ন দেখেন। প্রতিদিনই তারা ভাবেন কবে শিক্ষা প্রতিষ্ঠান জাতীয়করণ হবে কবে তারা বেসরকারি নামের কালিমা মুছতে পারিবে?

এ স্বপ্ন তারা দেখতে জানতেন না। কখনো ভাবেন নি। এ কিছু দিন হয় তাও প্রায় ৩-৪ বছর হবে বেসরকারি শিক্ষা প্রতিষ্ঠান জাতীয়করণের স্বপ্ন দেখেন বেসরকারি শিক্ষক গণ।

এ স্বপ্ন দ্রষ্টা কে জানেন? তিনি হলেন আমাদের দেশের সফল প্রধান মন্ত্রী মাননীয় শেখ হাচিনা। তিনিই স্বপ্ন দেখেন এ দেশে কোন এমপিও ভুক্ত শিক্ষা প্রতিষ্ঠান থাকবেনা সব প্রতিষ্ঠান সরকারি করণ করিতে হবে।

তিনি মাননীয় প্রধান মন্ত্রী কিছু বাস্তবায়ন করেছেন। আমার মনে হয় তিনি চেয়েছিলেন এক যোগে সারা বাংলাদেশের সকল এমপিওভুক্ত প্রতিষ্ঠান সরকারিকরণ করিবেন। কিন্ত মন্ত্রণালয়ের পরিকল্পণার তিনি হয়ত তখন তা পারেন নি। মন্ত্রণালয়ের পরিকল্পণা প্রতেক থানায় একটি করে কলেজ এবং একটি করে স্কুল জাতীয়করণ হবে। এ পরিকল্পণা মত কাজ হয়েছে।

এখন সরকার চাইলে একযোগে দেশের সকল এমিপিওভুক্ত প্রতিষ্ঠান জাতিয়করণ করিতে পারে।

সরকার মুল বেতনত দিচ্ছেই কিন্ত সরকার প্রতিষ্ঠান হতে ইনকাম নিচ্ছে না বা পাচ্ছেনা। জাতীয়করণ করে মুল বেতনের সাথে বাড়ি ভাড়া আর অনান্য সুবিধা দিতে হবে কিন্ত সরকার প্রতিষ্ঠানের ইনকাম নিবে এতে সরকারের লজ্ব হবে বলে মনে হচ্ছে না। হলেও কিছু প্রতিষ্ঠানে হবে।

কিন্ত জাতীকরণ করিলে লাভ আওয়ামিলীগ দলে এবং আমার এবং আমাদের মাননীয় প্রধামন্ত্রীর। কারণ প্রতেক শিক্ষক এবং তার পরিবার আওয়ামিলীগ দলের জন্য এবং মাননীয় প্রধান মন্ত্রীর জন্য দোয়া করিবেন। এতে স্বপ্ন পুরুণ হবে আমাদের বাঙ্গালীর জাতির পিতা রাষ্ট্রপতি শেখ মুজিবের। তাই আমাদের দাবি দ্রুত সকল প্রতিষ্ঠান জাতীয়করণ করা হোক।

লিমা, সহকারি শিক্ষক, কাদিরপুর মাদ্রাসা, শিবচর, মাদারীপুর।