৯ই জ্যৈষ্ঠ, ১৪২৬ বঙ্গাব্দ
বৃহস্পতিবার , মে ২৩ ২০১৯
Breaking News
Home / এনটআরসিএ / পয়ত্রিশোর্ধ নিবন্ধিতদের এমপিও নীতিমালা চ্যালেঞ্জ করার আহবান

পয়ত্রিশোর্ধ নিবন্ধিতদের এমপিও নীতিমালা চ্যালেঞ্জ করার আহবান

দিনাজপুর প্রতিনিধিঃ বেসরকারি শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানে যোগ্য এবং বিষয়ভিত্তিক শিক্ষক সংকটে নাজুক অবস্থার সৃষ্ট হয়েছে। দেশের বিভিন্ন শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানে শিক্ষকের শূন্যপদ সৃষ্টি হওয়ার কারণে শিক্ষকদের রুটিনের চেয়ে বেশি ক্লাস নিতে হচ্ছে। ফলে একদিকে যেমন শিক্ষকদের হাড় খাটা পরিশ্রম হচ্ছে অন্যদিকে মানসম্মত শিক্ষা ব্যাহত হচ্ছে।
গত বছরের ১৪ ডিসেম্বর মহামান্য আদালত নিবন্ধন সনদধারীদের নিয়োগের সুপারিশ করতে এনটিআরসিএ’কে নির্দেশ প্রদান করে। রায় অনুসারে প্রতিষ্ঠানটি জাতীয় সমন্বিত মেধাতালিকা প্রকাশ এবং মাসাধিক সময় নিয়ে ই-রিকুইজিশন সমাপ্ত করলেও সুপারিশ ব্যাপারে কোন পদক্ষেপ নিতে পারেনি। এদিকে এনটিআরসি চেয়ারম্যান এ এম এম আজাহার তার তার দায়িত্ব থেকে অব্যাহতি পেলেও রিপোর্ট  লেখা পর্যন্ত একে একে দুই কর্মকর্তা  চেয়ারম্যানের দায়িত্ব গ্রহন করেনি।

ফলে প্রতিষ্ঠানটি প্রায় অভিভাবকহীনভাবে দিন পার করে যাচ্ছেন। তবে ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যান হিসেবে বর্তমানে ড.মো. মাহামুদ উল হক দায়িত্ব পালন করছেন।
গত দুই বছরে মিরপুর সিদ্ধান্ত হাইস্কুলের মতো অনেক শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানে শিক্ষকের পদ শূন্য হয়েছে। জানা যায়, খানসামা উপজেলার দুহশুহ উচ্চ বিদ্যালয়ে ইংরেজি, সামাজিক বিজ্ঞান এবং  বাংলা বিষয়ে ৩টি শূন্যপদ  রয়েছে। একই ভাবে উপজলার কুতুবডাংগা উচ্চ বিদ্যালয়ে বিজ্ঞান শিক্ষক পদ শুন্য রয়েছে।
বিভিন্ন পত্রপত্রিকার মাধ্যমে জানা গেছে, পয়ত্রিশোর্ধ সনদধারিরা নিয়োগের জন্য যোগ্য বিবেচিত হবে না। এ বিষয়ে ১২তম শিক্ষক নিবন্ধনধারী এবং ৩৮ বয়সি মোহাম্মদ নাজমুল হকের জানায়, আমি ১২ তম নিবন্ধন পরীক্ষায় দিনাজপুর সদর উপজেলার একমাত্র উত্তীর্ণ প্রার্থী। এনটিআরসিএ প্রথমবারের মতো দ্বাদশ নিবন্ধনের মেধা তালিকা করে কিন্তু ২০১৬ সালের নিয়োগ সুপারিশে আমি নিয়োগ সুপারিশ পাইনি। এখন এমপিও-১৮ কালো নীতিমালায় আমাদের বাদ দেওয়ার গভীর ষড়যন্ত্র চলছে। এটা মেনে নেওয়া যায় না। তাই ৩৫ বা তদুর্ধ বয়সি শিক্ষক নিবন্ধিতদের নিয়ে এমপিও নীতিমালার ১১(৬) ধারা বাতিল করার জন্য আগামী ২৮ অক্টোবর রবিবার মহামান্য হাইকোর্টে রীট দাখিল করতে যাচ্ছি।

নাজমুল হককে এনটিআরসিএ’র গণবিজ্ঞপ্তিতে ৩৫ বয়সিদের রাখার কথা বললে তিনি আরো জানান, এনটিআরসি একটি ধূর্ত প্রতিষ্ঠান। এর আগে গনবিজ্ঞপ্তিটি ঠিক ছুটির সময়ে দিয়েছিল। আসন্ন বিজ্ঞপ্তিটিও যদি স্বল্প সময়ে ছুটির দিনে প্রকাশ করে এবং ৩৫ বয়সি নিবন্ধিতরা তাতে বঞ্চিত হলে করার কিছুই থাকবে না। এজন্য এনটিআরসিএ’র প্রজ্ঞাপনের অপেক্ষায় না থেকে এমপিও নীতিমালাকে চ্যালেঞ্জ করে রীট করতে যাচ্ছি। তিনি শিক্ষাখবর অনলাইনের মাধ্যমে ৩৫ বয়সি শিক্ষক নিবন্ধিতদের দ্রুত এ ব্যাপারে সচেতন হওয়ার আহবান জানিয়েছেন।

Check Also

২০২০ সাল থেকে অনলাইনে বেসরকারি শিক্ষকদের বদলি

শিক্ষা মন্ত্রণালয়ের দুর্ণীতির প্রভাব বিস্তার রোধ ও শিক্ষকদের শৃঙ্খলায় রাখতে ২০১৮ সালে বেসরকারি শিক্ষক বদলির …

এনটিআরসিএ এর গণবিজ্ঞপ্তি প্রকাশ

নিজস্ব প্রতিবেদকঃ ২০১৯ সালের নিয়োগ প্রক্রিয়া নিয়ে এনটিআরসিএ আবার গণবিজ্ঞতি প্রকাশ করেছে। গণ বিজ্ঞপ্তিতে মাদ্রাসায় …

১৫ তম শিক্ষক নিবন্ধন: প্রিলিমিনারির অ্যাডমিট কার্ড অনলাইনে- dainikahikshakhobor

নিজস্ব প্রতিবেদকঃ পঞ্চদশ নিবন্ধন প্রিলি পরীক্ষা ১৯ এপ্রিল। রবিবার রাত্র হতে প্রবেশ পত্র পাওয়া যাচ্ছে। …

এনটিআরসিএ জরুরী নোটিশ জারি করেছে

পঞ্চদশ পরীক্ষা সম্পূর্ণ করা নিয়ে এনটিআরসিএ নোটিশ জারি করেছে। নোটিশে বলা হয়েছে ১৫ তম পরীক্ষা …

One comment

  1. 35+ দের চাকুরি হবেই তবে আরো যুদ্ধ করিতে হবে।

Leave a Reply

Your email address will not be published.

4 × two =