৮ই জ্যৈষ্ঠ, ১৪২৬ বঙ্গাব্দ
বুধবার , মে ২২ ২০১৯
Breaking News
Home / জব/ভর্তি স্টাডি / পরীক্ষার জন্য বিগত সালে আসা বাছাইকৃত ১২৫০টি

পরীক্ষার জন্য বিগত সালে আসা বাছাইকৃত ১২৫০টি

পরীক্ষার জন্য বিগত সালে আসা বাছাইকৃত ১২৫০টি

প্রশ্নোত্তর থেকে আজ ১০০টি রিভিশন দেন….

বাংলা–সাহিত্য

০১) কপালকুণ্ডলা(১৮৬৬) যে প্রকৃতির রচনা?

__রোমান্সধর্মী উপন্যাস

(নায়ক নবকুমার ও কপালকুণ্ডলা)

০২) তুমি অধম তাই বলে আমি উত্তম হইবো না কেন?

__বঙ্কিমচন্দ্রের কপালকুণ্ডলা উপন্যাসের উক্তি।

০৩) স্বাধীনতা, এই শব্দটি কীভাবে আমাদের

হলো’কবিতাটির রচয়িতা কে?

__নির্মেলেন্দু গুণ

০৪) আধ্যাত্মিকা”গ্রন্থের লেখক কে?

__প্যারিচাঁদ মিত্র

০৫) চোখের বালি(১৯০৩)” উপন্যাসটির লেখক কে?

__রবীন্দ্রনাথ ঠাকুর।

০৬) তুমি আসবে বলে হে স্বাধীনতা”কার কবিতা?

__শামসুর রাহমানের

০৭) শূন্যপুরাণ”রচনা করেন কে?

__রামাই পণ্ডিত

০৮) সুকান্ত ভট্টাচার্য কর্তৃক সম্পাদিত পত্রিকার নাম

কী?

__আকাল

০৯) রবীন্দ্রনাথ ঠাকুরের “ছিন্নপত্রের” অধিকাংশ পত্র

কাকে উদ্দশ্য করে লেখা?

__ইন্দিরা দেবীকে।

১০) রবীন্দ্রনাথ ঠাকুরের “ভানুসিংহ”ঠাকুরের

পদাবলীর ভাষা কী?

__ব্রজবুলি

১১) সর্বপ্রথম বিধবাবিবাহের পক্ষ্যে আন্দোলন করেন

কে?

__ঈশ্বরচন্দ্র বিদ্যাসাগর।

১২) বর্ণপরিচয়”এর রচয়িতা কে?

__ঈশ্বচন্দ্র বিদ্যাসাগর।

১৩) অশোক সৈয়দ”কার ছন্মনাম?

__আব্দুল মান্নান সৈয়দ এর।

১৪) গাড়ি চলে না,চলে না, চলে না রে”গানটির

গীতিকার কে?

__শাহ্ আব্দুল করিমের।

১৫) মোরা একটি ফুলকে বাঁচাবো বলে যুদ্ধ করি”গানটির

রচয়িতা কে?

__গোবিন্দ হালদার

১৬) সনেট এর কয়টি অংশ?

__২টি(ভাবের প্রবর্তনা ও পরিণতি)

১৭) বাংলা সাহিত্যে অন্যতম বিশিষ্ট পত্রিকা

“কল্লোল”কত সালে প্রকাশিত হয়?

__১৯২৩ সালে।

১৮) তত্ত্ববোধিনী পত্রিকার সম্পাদক কে ছিলেন?

__অক্ষয়কুমার দত্ত

১৯) পূর্বাশা পত্রিকার সম্পাদক কে ছিলেন?

__সঞ্জয় ভট্টাচার্য

# ____ব্যাকরণ

২০) ব্যাকরণ ভাষাকে কী করে?

___বিশ্লেষণ করে।

২১) স্ত্রী<ইস্ত্রী হয়েছে কোন প্রকিয়ায়?

__আদি স্বরাগম

২২) অনাদর শব্দটির ব্যাসবাক্য কী?

__ন আদর

২৩) মা ছিল না বলে কেই তার চুল বেঁধে দেয় নি”এটি কি

ধরনের বাক্য?

__সরল বাক্য

২৪)’ড়, ঢ়’ কী জাতীয় ধ্বনি?

__তাড়নজাত

২৫) ণ-ত্ব,ষ-ত্ব বিধান কোন শব্দে হয়?

__তৎসম বা সংস্কৃত শব্দে।

২৬)বাংলা ব্যাকরণের কোন অংশে “সন্ধি” আলোচনা

করা হয়?

__ধ্বনিতত্ত্বে

২৭)পিত্রালয়” এর সন্ধি বিচ্ছেদ কী?

__পিতৃ+আলয়

২৮)পরস্পর”কোন ধরনের সন্ধি?

__নিপাতনে সিদ্ধ

২৯)সম্+চয়”এটা কোন ধরনের সন্ধি?

__ব্যঞ্জন সন্ধি

৩০)পরীক্ষা”এর সন্ধি বিচ্ছেদ কী?

__পরি+ঈক্ষা

৩১)কোন প্রত্যয়যুক্ত শব্দে মূর্ধন্য-ষ হয় না?

__সাৎ

৩২)সমাসের রীতি কোন ভাষা থেকে এসেছে?

__সংস্কৃত ভাষা থেকে।

৩৩)আলোছায়া” পদটি কোন সমাস?

__দ্বন্দ্ব সমাস(আলো ও ছায়া)

৩৪)প্রভাতে উঠিল রবি লোহিত বরণ”

এখানে ‘প্রভাতে’ কোন কারকে?

__অধিকরণে ৭মী

৩৫)”ষোলকলা’শব্দের অর্থ কী?

__সম্পূর্ণ

৩৬)”ফুটিফাটা” বাগধারার অর্থ কী?

__চৌচির

৩৭)যা দমন করা যায় না” এক কথায় কী?

__অদম্য

৩৮)যে রোগ নির্ণয় করতে হাতরে মরে?এক কথায় কী?

__হাতুড়ে

৩৯)বিশেষ খ্যাতি আছে যার”এক কথায়?

__বিখ্যাত।

৪০)প্রাচ্য এর বিপরীত কী?

__প্রতীচ্য

৪১)নির্মল শব্দের বিপরীত কী?

__পঙ্কিল

৪২)”Pragmatic”এর সঠিক অর্থ কী?

__বাস্তবধর্মী

৪৩)Justification for”এর সঠিক অনুবাদ

__সমর্থন।

# বাংলাদেশ_বিষয়াবলি_ও_ইংরেজি

৪৪)খাসিয়া গ্রামগুলো কী নামে পরিচিত?

__পুঞ্জি

৪৫)বর্ণালি ও শুভ্রা” কিসের জাত?

__উন্নত জাতের ভুট্টা

৪৬)বাংলাদেশের ডাক বিভাগে ডাক টাকা চালু হয়

কবে?

__১১ডিসেম্বর ২০১৭ সালে।

৪৭)মুজিবনগর কোথায় অবস্থিত?

__মেহেরপুর জেলায়।

৪৮) ৬দফা দাবী কোথায় উত্থাপিত হয়?

__লাহোরে।

৪৯)ব্রিটিশ ভারতের শেষ ভাইসরয় এর নাম কী?

__লর্ড মাউন্টব্যাটেন।

৫০)মুক্তিযুদ্ধের সময় যশোর জেলা কত নং সেক্টরের

অধীনে ছিল?

__৮নং সেক্টরে।

৫১)বাংলাদেশ জাতি সংঘের কততম সদস্য?

__১৩৬তম

৫২)বাংলাদেশের পরমাণু শক্তি কমিশন কত সালে গঠিত

হয়?

__১৯৭৩ সালে।

৫৩)মৌর্য ও গুপ্ত বংশের রাজধানী কোথায় ছিল?

__পাটলিপুত্রে

৫৪)বাংলার প্রথম স্বাধীন রাজা কে?

__রাজা শশাঙ্ক

৫৫)প্রথম মুসলিম বিজেতা কে?

__মুহম্মদ বিন কাশিম

৫৬)শাহ্ ই বাঙ্গালা”কার উপাধি?

__শামসুদ্দিন ইলিয়াস শাহ

৫৭)কবে ইউনেস্কো ২১শে ফব্রুয়ারিকে আন্তর্জাতিক

মাতৃভাষা হিসেবে স্বীকৃতি দেয়?

__১৭ নভেম্বর ১৯৯৯ সালে।

৫৮)গণপ্রজাতন্ত্রী বাংলাদেশের স্বাধীনতার

ঘোষণাপত্র পাঠ করেন কে?

__অধ্যাপক এম.ইউসুফ আলী

৫৯)স্বাধীন বাংলাদেশকে মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র কবে

স্বীকৃতি দেয়?

__৪এপ্রিল ১৯৭২ সালে।

৬০)রাজবংশী নামক ক্ষুদ্র নৃ-গোষ্ঠী কোথায় বাস করে?

__রংপুর ও শেরপুরে।

৬১)বাংলাদেশে পঞ্চবার্ষিকী পরিকল্পনা হয়েছে

কতটি?

__৭টি

৬২)বর্তমানে মোট উপজেলা কতটি?

__৪৯২টি

৬৩)”Product of the year-2018 কোন পণ্যটি?

__ওষুধ

★৬৪)বাংলাদেশে প্রথম রেললাইন স্থাপন করা হয়

কোথায়?

__দর্শনা-জগতি(কুষ্টিয়া)

৬৫)সংবিধান দিবস কত তারিখে?

__৪ নভেম্বরে।

৬৬)সংবিধানের কোন অনুচ্ছেদে “চলা ফেরার

স্বাধীনতার “কথা বলা আছে?

__৩৬ নং অনুচ্ছেদে।

# ____English____

৬৭) A person devoid of knowledge”

__Ignorant

৬৮) The book “Ivanhoe”is written by?

__Sir Walter Scott

৬৯)The poem”Solitary Reaper”is written by?

__William Wordsworth

৭০)The man lapsed___past memories”

___into

৭১)Divide the money__the two boys”

__between

৭২)Kamal is good__cricket.

__at

৭৩)I shall do it__pleasure.

__with

৭৪)I am fatigued__wide travelling.

__by

৭৫)He is used to__hard.

__working

৭৬)The committee__divided in their opinion.

__were

৭৭)Nine thousand taka__a good

amount of money.

__is

৭৮)The word “substantiate”is a

__verb

৭৯)The word “decision”is a

__noun

৮০)The word “wonderful”is a/an

__adjective

# English translation of the Bengali sentence.

৮১)অপমানের চেয়ে মৃত্যু শ্রেয়…

__Death is preferable to dishonour.

৮২)শিশুটি হাসতে হিসতে মায়ের নিকট এলো।

__The baby came to its mother laughing.

→The passive from of___

৮৩) Do you know the man?’is

__Is the man known to you.

৮৪) “Let me do the work”is

__Let the work be done by me.

→The indirect narration of the sentence.

৮৫) He said,Good morning sir”is

__He respectfully wished good morning to the person spoken to.

৮৬)Akbar said, What a fine picture it is!

__Akbar exclaimed that it was a very fine picture.

Completed by__Ramjan

Idioms and Phrases

_________________________________

৮৭)→Block head___Foolish

৮৮)→By and large___Mostly

৮৯)→Fits and starts___irregularly

৯০)→White colour job___A job without manual labour.

Correct Spelling

_________________________________

৯১)→Millennium

৯২)→Caterpillar

৯৩)→Dysentery

৯৪)→Misspell

৯৫)→Bureaucrat

৯৬)→Tuition

৯৭)→Humorous

৯৮)→Curruption

Antonyms

_________________________________

৯৯)→Adulterate__Pure

১০০)→Altruism__Meanness

সাধারণ জ্ঞান : আন্তর্জাতিক
গোয়েন্দা সংস্থা :

১। ফেয়ারফ্যাক্স- যুক্তরাষ্ট্র
২। স্কটল্যান্ড ইয়ার্ড- যুক্তরাজ্য
৩। মুখবরাত- মিশর
৪। মোসাদ- ইসরায়েল
৫। আমান- ইসরায়েল
৬। সাভাক- ইসরায়েল
৭। র ( RAW) – ভারত
৮। আইএসআই- পাকিস্তান

বিমানসংস্থার নাম:

১। ইন্দোনেশিয়া – গারুদা
২। জার্মানি – লুফথানসা
৩। রাশিয়া – এরোফ্লট
৪। ট্রান্স ওয়ার্ল্ড এয়ার লাইনস- যুক্তরাষ্ট্র

বিমানবন্দর :

১। হিথ্রো বিমানবন্দর – লন্ডন
২। সুবর্ণভূমি বিমানবন্দর – নেপাল

দিবস:

১। বিশ্ব নারী দিবস- ৮ মার্চ
২। বিশ্ব স্বাস্থ্য দিবস- ৭ এপ্রিল
৩। জাতিসংঘ শান্তিরক্ষী বাহিনী দিবস- ২৯ মে
৪। বিশ্ব তামাকমুক্ত দিবস- ৩১মে
৫। বিশ্ব জনসংখ্যা দিবস- ১১ জুলাই
৬। বিশ্ব আদিবাসী দিবস – ৯ আগস্ট
৭। বিশ্ব সাক্ষরতা দিবস – ৮ সেপ্টেম্বর
৮। আন্তর্জাতিক গণতন্ত্র দিবস – ১৫ সেপ্টেম্বর
৯। বিশ্ব অহিংস দিবস – ২ অক্টোবর
১০৷ বিশ্ব খাদ্য দিবস – ১৬ অক্টোবর
১১। বিশ্ব এইডস দিবস – ১ ডিসেম্বর
১২। বিশ্ব দুর্নীতি বিরোধী দিবস – ৯ ডিসেম্বর
১৩। বিশ্ব মানবাধিকার দিবস- ১০ ডিসেম্বর

নতুন ও পুরাতন নাম:

১। জিম্বাবুয়ে – দক্ষিণ রোডেশিয়া
২। বারকিনা ফাসো- আপার ভোল্টা
৩। কঙ্গো প্রজাতন্ত্র – জায়ারে
৪। ঘানা- গোল্ড কোস্ট
৫। জাম্বিয়া- উত্তর রোডেশিয়া
৬। নেদারল্যান্ড – হল্যাণ্ড
৭। চীন- ক্যাথে
৮। জার্মানি- ডয়েচেল্যান্ড

পর্বত:

১। আন্দিজ পর্বতমালা- দক্ষিণ আমেরিকা
২। পৃথিবীর সর্বোচ্চ পর্বত- মাউন্ট এভারেস্ট
৩। এডামস পিক- শ্রীলঙ্কা
৪। তোরাবোরা গুহা/ পাহাড় – আফগানিস্তান
৫। কিনাবালু- মালয়েশিয়া

উপত্যকা :

১। সোয়াত উপত্যকা – পাকিস্তান
২। মৃত্যু উপত্যকা – আমেরিকা যুক্তরাষ্ট্র

মরুভূমি :

১। সাহারা মরুভূমি – পৃথিবীর সবচেয়ে মরুভূমি। একে ” আফ্রিকার দুঃখ ” বলা হয়।
২। গোবি মরুভূমি – ( মঙ্গোলিয়া-চীন)
৩। কালাহারি মরুভূমি – আফ্রিকা
৪। তাকলামাকান- চীন
৫। থর- (ভারত-পাকিস্তান)
৬। চিহুয়াহুয়ান- (মেক্সিকো – যুক্তরাষ্ট্র)

সাগর তীরবর্তী রাষ্ট্র :

১। ভূমধ্যসাগর – মিশর, লিবিয়া, আলজেরিয়া, তিউনেসিয়া, মরক্কো, স্পেন, ফ্রান্স, ইতালি, স্লোভেনিয়া, ক্রোয়েশিয়া, বসনিয়া ও হার্জেগোভিনা, মন্টেনিগ্রো, আলবেনিয়া, গ্রিস, তুরস্ক, সাইপ্রাস, সিরিয়া, লেবানন, ইসরায়েল

স্থলবেষ্টিত রাষ্ট্র :

১। বিশ্বের মোট স্থল বেষ্টিত দেশের সংখ্যা – ৪৫টি
২। এশিয়া- নেপাল, ভুটান, আফগানিস্তান, লাওস, মঙ্গোলিয়া, কাজাখস্তান, কিরগিজস্তান, তাজিকিস্তান, উজবেকিস্তান, তুর্কমেনিস্তান
৩। ইউরোপ – হাঙ্গেরি, সুইজারল্যান্ড, কসোভো
৪। আফ্রিকা – ইথিওপিয়া, জিম্বাবুয়ে, দক্ষিণ সুদান
৫। দক্ষিণ আমেরিকা- প্যারাগুয়ে, বলিভিয়া

ছিদ্রায়িত রাষ্ট্র :

১। ২টি; যথা- ইটালি, দক্ষিণ আফ্রিকা

রাজধানীর নামঃ

১। মঙ্গোলিয়া- উলানবাটোর
২। উত্তর কোরিয়া- পিয়ংইয়ং
৩। মায়ানমার- নাইপিদো
৪। কম্বোডিয়া – নমপেন
৫। লাওস- ভিয়েনতিয়েন
৬। মালয়েশিয়া – কুয়ালালামপুর
৭। শ্রীলঙ্কা – কলম্বো
৮। লেবানন – বৈরুত
৯। সিরিয়া- দামেস্ক
১০। তুরস্ক – আঙ্কারা
১১। কাতার- দোহা
১২। জর্ডান- আম্মান

১৩। কাজাখস্তান – আস্তানা
১৪। কিরগিজস্তান – বিশকেক
১৫। তুর্কমেনিস্তান – আশখাবাদ
১৬। উজবেকিস্তান – তাসখন্দ
১৭। তাজিকিস্তান – দুশানবে
১৮। ফিনল্যান্ড – হেলসিংকি
১৯। ডেনমার্ক – কোপেনহেগেন
২০। ইউক্রেন – কিয়েভ
২১। বেলজিয়াম – ব্রাসেলস
২২। কসোভো- প্রিস্টিনা
২৩। নেদারল্যান্ড- আমস্টারডাম
২৪। পোল্যান্ড- ওয়ারস
২৫৷ এস্তোনিয়া- তাল্লিন
২৬। লাটভিয়া- রিগা
২৭। দক্ষিণ সুদান- জুবা
২৮। বুরুন্ডি- বুজুমবুরা
২৯। মাদাগাস্কার – আনতানানারিবো
৩০। উগান্ডা – কাম্পালা
৩১। গণতান্ত্রিক কঙ্গো প্রজাতন্ত্র – কিনসাসা
৩২। সেনেগাল- ডাকার
৩৩। দক্ষিণ আফ্রিকা – কেপটাউন
৩৪। বারকিনা ফাসো- ওয়াগাডুগু
৩৫। মৌরিতানিয়া- নৌয়াকচট
৩৬। ইথিওপিয়া – আদ্দিস আবাবা
৩৭। হন্ডুরাস – তিগুচিগালপা
৩৮। চিলি- সান্টিয়াগো
৩৯। আর্জেন্টিনা – বুয়েন্স আয়ারস
৪০। পেরু- লিমা

দ্বীপ :

১। পৃথিবীর বৃহত্তম দ্বীপ – গ্রীণল্যান্ড
২। গ্রীণল্যান্ড দ্বীপটির মালিকানা – ডেনমার্ক
৩। ভৌগোলিকভাবে উত্তর আমেরিকার কিন্তু রাজনৈতিক ভাবে ইউরোপের- গ্রীণল্যান্ড
৪। পৃথিবীর সর্বাধিক দ্বীপরাষ্ট্র – ইন্দোনেশিয়া
৫। কুড়িল দ্বীপপুঞ্জ নিয়ে বিরোধ রয়েছে- রাশিয়া ও জাপান
৬। শাখালিন দ্বীপপুঞ্জ নিয়ে বিরোধ রয়েছে- রাশিয়া ও জাপান
৭। সেনকাকু নিয়ে বিরোধ রয়েছে- চীন ও জাপান
৮। স্প্রাটলি দ্বীপপুঞ্জ নিয়ে বিরোধ রয়েছে – চীন ও ভিয়েতনাম
৯। আবু মুসা দ্বীপ – ইরান ও সংযুক্ত আরব আমিরাত
১০। পেরেজিল দ্বীপ – মরক্কো ও স্পেন
১১। ফকল্যান্ড – আর্জেন্টিনা ও ব্রিটেন
১২। চীনে ‘দিয়াওয়াও’ নামে পরিচিত – সেনকাকু দ্বীপপুঞ্জ
১৩। জাফনা দ্বীপ অবস্থিত – শ্রীলঙ্কা
১৪। আফ্রিকা ও এশিয়ার মধ্যে ভূমি সেতুর কাজ করে- সিনাই উপত্যকা

হ্রদ :

১৫। আয়তনে বিশ্বের বৃহত্তম হ্রদ- কাস্পিয়ান সাগর
১৬। বিশ্বের বৃহত্তম সুপেয় পানির হ্রদ- সুপিরিয়র হ্রদ
১৭। গ্রেট লেকস কয়টি?- ৫ টি
১৮। তাঞ্জানিয়া ও উগান্ডার আন্তর্জাতিক সীমানা হিসেবে পরিচিত – ভিক্টোরিয়া হ্রদ
১৯। বিশ্বের গভীরতম হ্রদ- বৈকাল
২০। পৃথিবীর সর্বাধিক লবণাক্ত পানির হ্রদ- আসাল হ্রদ
২১। লবণ সাগরের আসল নাম- মৃত সাগর
২২। পৃথিবীর যে সাগরে মানুষ অনায়াসে গা ভাসিয়ে থাকতে পারে- মৃতসাগর/ লবণ সাগর

প্রণালি :

২৩। এশিয়া থেকে আমেরিকাকে পৃথক করেছে- বেরিং প্রণালী
২৪। ভারত হতে শ্রীলঙ্কাকে পৃথক করেছে- পক প্রণালি
২৫। পারস্য উপসাগর ও ওমান উপসাগর সংযুক্ত করেছে- হরমুজ প্রণালি
২৬। এডেন সাগর ও লোহিত সাগরকে সংযুক্ত করেছে- বাব-এল-মান্দেব
২৭। এশিয়া থেকে ইউরোপকে পৃথক করেছে- বসফরাস প্রণালি / দার্দানেলিস প্রণালি
২৮। ইউরোপ হতে আফ্রিকাকে পৃথক করেছে- জিব্রাল্টার প্রণালি
২৯। ফ্রান্স ও ব্রিটেন পৃথক করেছে- ইংলিশ চ্যানেল
৩০। ব্রজেন দাস- একজন বাঙ্গালি সাঁতারু
৩১। পৃথিবীর বৃহত্তম খাল- সুয়েজ খাল
৩২। সুয়েজ খাল অবস্থিত – মিশর
৩৩। সুয়েজ খাল চালু হয়- ১৮৬৯ সালে
৩৪। সুয়েজ খাল সংযুক্ত করেছে- ভূমধ্যসাগর ও লোহিত সাগর
৩৫। পানামা খাল সংযুক্ত করেছে- আটলান্টিক মহাসাগর ও প্রশান্ত মহাসাগর

নদী:

৩৬। পৃথিবীর দীর্ঘতম নদী- নীল নদ
৩৭। নীলনদ প্রবাহিত হয়েছে- ১১ টি
৩৮। কায়রো কোন নদীর তীরে অবস্থিত? – নীল
৩৯। পৃথিবীর প্রশস্ততম নদী- আমাজন
৪০। বিশ্বের সবচেয়ে বেশি পানি প্রবাহিত হয়- আমাজন
৪১। পৃথিবীর বৃহত্তম নদী- আমাজন
৪২। এশিয়ার দীর্ঘতম নদী- ইয়াংসিকিয়াং
৪৩। হোয়াংহো নদীর স্থপত্তিস্থল – কুনলুন পর্বত
৪৪। চীনের দুঃখ বলে পরিচিত- কুনলুন পর্বত
৪৫। ইউরোপের সবচেয়ে বড় নদী- ভলগা
৪৬। ব্ল্যাকফরেস্ট অবস্থিত – জার্মানি
৪৭। শাত-ইল-আরব হলো- ট্রাইগ্রিস ও ইউফ্রেটিস বদরী মিলিত প্রবাহ
৪৮। পৃথিবীর কোন নদীতে মাছ হয় না?- জর্ডান
৪৯। পশ্চিম তীর অবস্থিত – জর্ডান

জলপ্রপাত :

৫০। বিশ্বের উচ্চতম জলপ্রপাত – অ্যাঞ্জেলস
৫১। নায়াগ্রা জলপ্রপাত অবস্থিত – আমেরিকা-কানাডা
৫২। বিশ্বের বৃহত্তম জলপ্রপাত – ভিক্টোরিয়া

ভৌগলিক উপনাম:

৫৩। বিশ্বের রাজধানী – নিউইয়র্ক
৫৪। পৃথিবীর কসাইখানা – শিকাগো
৫৫। ভূ-স্বর্গ– কাশ্মীর
৫৬। শ্বেতহস্তীর দেশ – থাইল্যান্ড
৫৭। হাজার হ্রদের দেশ – ফিনল্যান্ড
৫৮। হাজার দ্বীপের দেশ – ইন্দোনেশিয়া
৫৯। ম্যাপল পাতার দেশ – কানাডা
৬০। নীরব খনির দেশ – বাংলাদেশ
৬১। সমুদ্রের বধূ- ব্রিটেন
৬২। সাত পাহাড়ের শহর– রোম
৬৩। সোনালী তোরণের শহর– সানফ্রান্সিসকো
৬৪। সংস্কৃতির শহর- প্যারিস
৬৫। বিগ আপেল – নিউইয়র্ক
৬৬। উত্তরের ভেনিস — স্টকহোম
৬৭। প্রাচ্যের ভেনিস- ব্যাংকক
৬৮। ইউরোপের রণক্ষেত্র— বেলজিয়াম
৬৯। পুষ্পমণ্ডিত বৃক্ষের শহর– হারারে
৭০। সাত পাহাড়ের দেশ – রোম

ভাষা:

৭১। চীন- মান্দারিন (সবচেয়ে বেশি লোক এ ভাষায় কথা বলে)
৭২। আর্জেন্টিনা, চিলি, মেক্সিকো, স্পেন- স্পেনিশ
৭৩। যুক্তরাষ্ট্র, যুক্তরাজ্য, অস্ট্রেলিয়া, নিউজিল্যান্ড, কানাডা, ঘানা, জিম্বাবুয়ে, উগান্ডা, নাইজেরিয়া- ইংরেজি
৭৪। ব্রাজিল, পর্তুগাল – পর্তুগিজ
৭৫। জার্মানি, অস্ট্রিয়া– জার্মান
৭৬। ফ্রান্স, সেনেগাল, বেলজিয়াম, কঙ্গো, মাদাগাস্কার – ফ্রেঞ্চ
৭৭। অ্যান্ডোরা, স্পেন – ক্যাটালান
৭৮। আফগানিস্তান- পশতু
৭৯। ভুটান- দোজাংখা
৮০। কেনিয়া, তানজানিয়া- সোয়াহিলি
৮১। মালদ্বীপ – দিভেহী
৮২। শ্রীলঙ্কা – সিংহলি
৮৩। ইসরায়েল – হিব্রু
৮৪। মালয়েশিয়া – মালয়
৮৫। কম্বোডিয়া – খেমার
৮৬। ঘানা- আকান

সমুদ্রবন্দরঃ

৮৭। আকাবা- জর্ডান
৮৮। বন্দর আব্বাস – ইরান
৮৯। এডেন– ইয়েমেন
৯০। হাইফা- ইসরায়েল
৯১। ডানজিগ– পোল্যান্ড
৯২। আন্টওয়ার্প- বেলজিয়াম
৯৩। পোর্ট সৈয়দ – মিশর
৯৪। ক্যাসাব্লান্কা- মরক্কো
৯৫। বেনগাজী- লিবিয়া
৯৬। উমকাসর- ইরাক
৯৭। ইসকানদারুন- তুরস্ক

মুদ্রা :

৯৮। গুলট্রাম- ভুটান
৯৯। কিয়াট- মায়ানমার
১০০। রিংগিত- মালয়েশিয়া
১০১। ইসরায়েল – শেকেল
১০২। জলোটি- পোল্যান্ড
১০৩। সেডি- ঘানা
১০৪। ডং- ভিয়েতনাম

আইনসভা :

১০৫। ইসরায়েল – নেসেট
১০৬। জাপান – ডায়েট
১০৭। আফগানিস্তান – লয়া জিরগা
১০৮। যুক্তরাষ্ট্র – কংগ্রেস
১০৯। রাশিয়া – স্টেট ডুমা
১১০। পাকিস্তান – মজলিশ
১১১। নরওয়ে – স্টরটিং
১১২। ডেনমার্ক – ফোকেটিং
১১৩। জার্মানি – বুন্টেসট্যাগ

প্রাইমারির বিগত বছরগুলোর ৫০০টি প্রশ্নোত্তর
১) ভাষার মূল উপাদান – ধ্বনি
২) আভরণ শব্দের অর্থ – অলংকার
৩) মন্ত্রের সাধন কিংবা শরীর পাতন এখানে কিংবা – বিয়োজক অব্যয়
৪) ঢাকের কাঠি বাগধারার অর্থ – তোষামুদে
৫) বাবুর্চি – তুর্কি শব্দ
৬) শুদ্ধ বানান – মূর্ধন্য
৭) চীনা শব্দ – চা, চিনি
৮) ভাষায় সর্বনাম ব্যবহারের উদ্দেশ্য – বিশেষ্যের পুনরাবৃত্তি দূর করা
৯) সন্ধির প্রধান সুবিধা – উচ্চারণে
১০) কর্মভোগ এড়ানো যায় না এখানে কর্ম অর্থ – কৃতকর্ম
১১) তুমি না বলেছিলে আগামীকাল আসবে? এখানে না – প্রশ্নবোধক অর্থে
১২) পাবক শব্দের সমার্থ – অগ্নি
১৩) মৃন্ময়ী যে উপন্যাসের নায়িকা – সমাপ্তি
১৪) তুমি যাও – অনুজ্ঞা
১৫) সঠিক যে টি – পথের দাবী ( উপন্যাস)
১৬) আত্নঘাতি বাঙালী – নীরদচন্দ্র চৌধুরীর গ্রন্থ
১৭) চতুরঙ্গ পত্রিকার সম্পাদক – হুমায়ুন কবির
১৮) রবীন্দ্রনাথের রচনা – চতুরঙ্গ
১৯) আবোল তাবোল কার – সুকুমার রায়
২০) ফোর্ট উইলিয়াম কলেজের বাংলা বিভাগের প্রধান ছিলেন – উইলিয়াম কেরি
২১) প্রত্যয়গতভাবে শুদ্ধ – উৎকর্ষতা
২২) অমিত্রাক্ষর ছন্দের বৈশিষ্ট্য – অন্তমিল থাকেনা
২৩) চাঁদ – তদ্ভব শব্দ
২৪) পুণ্যে মতি হোক এখানে পুণ্যে – বিশেষ্য
২৫) তার বয়স বেড়েছে কিন্তু বুদ্ধি বাড়েনি – যৌগিক বাক্য
২৬) আনারস, চাবি – পর্তুগিজ শব্দ
২৭) শুদ্ধ বানান – নির্নিমেষ
২৮) বাংলা ভাষায় যতি চিহ্নের প্রচলন করেন – ঈশ্বরচন্দ্র বিদ্যাসাগর
২৯) সংশয় এর বিপরীত শব্দ – প্রত্যয়
৩০) ইহলোকে যা সামান্য নয় – আলোক সামান্য
৩১) শশী ও কুমুদ চরিত্র দুটি – পুতুল নাচের ইতিকথার
৩২) ভাষায় সাহিত্যের গাম্ভীর্য ও আভিজাত্য প্রকাশ পায় – সাধু ভাষায়
৩৩) রাত্রির সমার্থক নয় – বারিদ
৩৪) ব্রজবুলি হলো – মৈথিলি ভাষার একটি উপভাষা
৩৫) অভিধানে আগে বসবে – চাঁটি শব্দি
৩৬) গাহি সাম্যের গান, ধরণীর হাতে দিল যারা আনি ফসলের ফরমান – নজরুলের সাম্যবাদী কবিতার লাইন
৩৭) অভিনিবেশ শব্দের অর্থ – মনোযোগ
৩৮) সঠিক বাক্য – আমার কথাই প্রমাণিত হলো
৩৯) সন্ধ্যায় সূর্য অস্ত যায় – নিত্যবৃত্ত অতীত
৪০) সাধুরীতির বৈশিষ্ট্য – সর্বনাম ও ক্রিয়াপদ এক বিশেষ গঠন পদ্ধতি মেনে চলে।

১) ঢাক ঢাক গুড় গুড় বাগধারার অর্থ – গোপন রাখার প্রয়াস
২) কোনটি পরিচ্ছদ – শিমুল
৩) যৌগিক বিশোষণের উদাঃ – পন্ডিত জনোচিত উক্তি
৪) প্রত্যয়ান্ত শব্দ – পিপাসা
৫) কোন ত্রয়ীবানান শুদ্ধ – মুমূর্ষু, সংঘর্ষ, বিমর্ষ
৬) কোনটি অঙ্গ ভূষণ – মেখলা
৭) Transliteration এর পরিভাষা – প্রতিবর্ণীকরন
৮) শেক্সপীয়রের টেমিং অব দি শ্রু বাংলা অনুবাদ করেন – মুনীর চৌধুরী
৯) পদাবলীর রচয়িতা – রবীন্দ্রনাথ ঠাকুর
১০) এক জাতীয় নয় – তনয়
১১) শামসুর রাহমানের গদ্য গন্থ – স্মৃতির শহর
১২) তুলনাজ্ঞাপক শব্দ – প্রমিত
১৩) লোকটা যে পিছনে লেগেই রয়েছে, কী বিপদ!! এখানে কী – বিরক্তি বোঝায়
১৪) বুদ্ধদেব বসু সম্পাদিত পত্রিকা – কবিতা
১৫) সমার্থক নয় – মরৎ
১৬) The window panes steamed up এর বাংলা – জানালার কাচ ঝাপসা হয়ে গেল
১৭) হাসি ও ব্যঙ্গের নজরুল কাব্য – পুবের হাওয়া
১৮) সমাস গঠিত শব্দ – নরপুঙ্গর ( দ্বন্দ্ব সমাস)
১৯) যৌবন এর বিপরীত শব্দ – জরা
২০) ছেমড়া শব্দটি – সংস্কৃত
২১) দহন কাল উপন্যাস এর জন্য বাংলা একাডেমী সাহিত্য পুরস্কার ২০১২ পদক পান – হরিশংকর
জলদাস
২২) জাফর ইকবালের প্রথম প্রকাশিত সায়েন্স ফিকশন – কপোট্রনিক সুখ দুঃখ ( ১৯৭৬)
২৩) চাচা কাহিনীর লেখক – সৈয়দ মুজতবা আলী
২৪) সোনালী কাবিন কাব্যের রচয়িতা – আল মাহমুদ
২৫) তোমাকে পাওয়ার জন্য হে স্বাধীনতা পংক্তিটির রচনা করেন – শামসুর রাহমান
২৬) শুব্দ বানান – মুমূর্ষু
২৭) যে নারী প্রিয় কথা বলে – প্রিয়ংবদা
২৮) দশানন কোন সমাস – বহুব্রীহি
২৯) Executive – এর পরিভাষা – নির্বাহী
৩০) পর্যালোচনা এর সন্ধি বিচ্ছেদ – পরি + আলোচনা
৩১) মেধাবী শব্দের প্রকৃতি প্রত্যয় – মেধা + বিণ
৩২) গোঁফ খেজুরে অর্থ – নিতান্ত অলস
৩৩) অন্ধজনে দেহ আলো এখানে অন্ধজনে কারক বিভক্তি – সম্প্রদানে ৭মী
৩৪) পৃথিবী শব্দের প্রতিশব্দ নয় – বারি
৩৫) কচ্ছপের কামড় বাগধারার অর্থ – নাছোড় বান্দা
৩৬) লাঠা লাঠি – বহুব্রীহি সমাস
৩৭) ভুল প্রতিশব্দ – ইচ্ছা- পরশ্রীকাতরতা
৩৮) ঠাকুরমার ঝুলি কি জাতীয় সংকলন – রুপকথা
৩৯) সৌম্য এর বিপরীত – উগ্র
৪০) জীবন্মৃত এর ব্যাসবাক্য – জীবিত থেকেও যে মৃত

১) আপদ এর বিপরীত শব্দ – সম্পদ
২) ভূত এর বিপরীত শব্দ – ভবিষ্যৎ
৩) শান্ত এর বিপরীত শব্দ – অনন্ত
৪) কৃতঘ্ন এর বিপরীত শব্দ – কৃতজ্ঞ
৫) অশুদ্ধ বাক্য – সর্বদা পরিস্কৃত থাকিবে
৬) শুদ্ধ বাক্য – তুমি কি ঢাকা যাবে??
৭) শুদ্ধ বাক্য – রহিমা পাগল হয়ে গেছে
৮) শুদ্ধ বাক্য – বুনো ওল, বাঘা তেতুল
৯) বায়ু শব্দের সমার্থক শব্দ – বাত
১০) চাঁদ এর সমার্থক শব্দ – নিশাপতি
১১) সমুদ্র শব্দের সমার্থক – পাথার
১২) রাজা শব্দের সমার্থক – নরেন্দ্র
১৩) জল শব্দের সমার্থক শব্দ – অম্বু
১৪) কৌমুদির প্রতিশব্দ নয় – নলিনী
১৫) অরুন এর প্রতিশব্দ নয় – বিজলী
১৬) নিকেতন এর প্রতিশব্দ নয় – তোয়
১৭) রামা এর প্রতিশব্দ নয় – সুত
১৮) শিক্ষককে শ্রদ্ধা কর। এখানে শিক্ষককে – সম্প্রদান ৭ মী বিভক্তি
১৯) পৌরসভা কোন সমাস – ৬ষ্ঠী তৎপুরুষ সমাস
২০) অর্ক এর প্রতিশব্দ নয় – অনিল
২১) কোনটি সঠিক – আপাদমস্তক
২২) দশানন কোন সমাস – বহুব্রীহি সমাস
২৩) ভূত এর বিপরীত শব্দ – ভবিষ্যত
২৪) রক্ত করবী – নাটক
২৫) বসুমতী শব্দের সমার্থক – ধরিত্রী
২৬) পরার্থ শব্দের অর্থ – পরোপকার
২৭) যে নারী প্রিয় কথা বলে – প্রিয়ংবদা
২৮) সাত সাগরের মাঝি কাব্য – ফররুখ আহমেদ এর
২৯) বৃষ্টি এর সন্ধি বিচ্ছেদ – বৃষ+তি
৩০) রবীন্দ্রনাথের রচনা নয় – বিষের বাঁশী
৩১) গুরুজনে ভক্তিকর এখানে গুরুজনে – কর্মকারক
৩২) বনফুল যার ছদ্মনাম – বলাইচাঁদ মুখোপাধ্যায়
৩৩) surgeon এর পরিভাষা – শল্য চিকিৎসক
৩৪) হে বঙ্গ ভান্ডারে তব বিবিধ রতন কার কবিতার লাইন – মাইকেল মধুসূদন দত্ত
৩৫) ব্যথার দান – কাজী নজরুল রচিত গল্প
৩৬) সংশপ্তক কার – শহীদুল্লাহ কায়সার
৩৭) পর্যালোচনার সন্ধি বিচ্ছেদ – পরি + আলোচনা
৩৮) অম্বর শব্দের অর্থ – আকাশ
৩৯) নিরানব্বইয়ের ধাক্কা – সঞ্চয়ের প্রবৃত্তি
৪০) শুদ্ধ বানান – পিপীলিকা
৪১) প্রবচন – পুরোনো চাল ভাতে বাড়ে
৪২) দারিদ্রতা শব্দটি অশুদ্ধ – প্রত্যয়জনিত কারনে।

১) কোন বানানটি সঠিক – ভদ্রোচিত
২) উনপাঁজুরে শব্দরে অর্থ – দুর্বল
৩) উত্তম পুরুষের উদাঃ – আমি
৪) দিনের আলো ও সন্ধ্যার আঁধারে মিলন – গোধূলী
৫) যা দীপ্তি পাচ্ছে – দেদীপ্যমান
৬) আকাশ শব্দের সমার্থক নয় – হিমাংশু
৭) দেশী শব্দ – চাল, চুলা
৮) সন্ধি শব্দের বিপরীত শব্দ – বিয়োগ
৯) কোনটির লিঙ্গান্তর হয় না – কবিরাজ
১০) সকল সভ্যগণ এখানে উপস্থিত ছিলেন এর শুব্দ রুপ – সভ্যগণ এখানে উপস্থিত ছিলেন
১১) বাঁধ্ + অন = বাঁধন কোন শব্দ – কৃদন্ত শব্দ
১২) ধাতু কয় প্রকার – ৩ প্রকার
১৩) রচনাটির উৎকর্ষতা অনস্বীকার্য এর শুব্দ রুপ – রচনাটির উৎকর্ষ অনস্বীকার্য
১৪) দশে মিলে করি কাজ এখানে দশে – কর্তৃকারকে ৭মী বিভক্তি
১৫) স্বরসংগতির উদাহরন – দেশী> দিশী
১৬) পাতায় পাতায় পড়ে নিশির শিশির এখানে পাতায় পাতায় – অধিকরণে ৭মী বিভক্তি
১৭) যে বহু বিষয় জানে – বহুজ্ঞ
১৮) যৌগিক স্বরধ্বনি – ঐ
১৯) সূর্য এর প্রতিশব্দ নয় – হিমকর
২০) কবর কবিতাটি কোন কাব্যের – রাখালী
২১) আহসান হাবীব এর কাব্যগ্রন্থ – আশার বসতি, ছায়াহরিণ, সারাদুপুর
২২) যাহা দিলাম তাহা উজাড় করিয়া দিলাম। – রবীন্দ্রনাথের হৈমন্তী গল্পের উক্তি
২৩) হাজার বছর ধরে রচনা করেন – জহির রায়হান
২৪) এখানে তোর দাদির কবর ডালিম গাছের তলে, তিরিশ বছর ভিজায়ে রেখেছে দুই নয়নের জলে।
এর পরের লাইন — এতটুকু তারে ঘরে এনেছিনু সোনার মত মুখ
২৫) তপুকে আবার ফিরে পাবো, একথা ভুলেও ভাবিনি কোন দিন — জহির রায়হানের একুশের গল্পের
উক্তি
২৬) রবীন্দ্রনাথ নোবেল পান – ১৯১৩ সালে
২৭) রবীন্দ্রনাথের রচনা নয় – মৃত্যু ক্ষুধা
২৮) ঈশ্বরচন্দ্র বিদ্যাসাগরের পারিবারিক পদবি – বন্দোপাধ্যায়
২৯) সুকান্ত ভট্টাচার্য মৃত্যুবরন করেন – ২১ বছরে
৩০) রবীন্দ্রনাথের জন্ম – ২৫ বৈশাখ,১২৬৮ বাংলা
৩১) জীবন থেকে নেয়া, স্টপ জেনোসাইড, লেট দেয়ার বি লাইট – জহির রায়হানের রচনা
৩২) মহাশশান মহাকাব্য – কায়কোবাদ রচনা করেন
৩৩) সনেট এর পংক্তি – ১৪ টি
৩৪) বাংলা কাব্যে অমিত্রাক্ষর ছন্দের প্রবর্তক – মাইকেল মধুসূদন দত্ত
৩৫) পদ্মা নদীর মাঝি যার লেখা – মানিক বন্দোপাধ্যায়
৩৬) রবীন্দ্রনাথ ঠাকুরের কাব্য গ্রন্থ নয় – নৌকাডুবি
৩৭) রাজবন্দীর জবানবন্দী কার – কাজী নজরুল ইসলাম
৩৮) গগনে গরজে মেঘ, ঘন বরষা পরের লাইন – কূলে একা বসে আছি, নাহি ভরসা
৩৯) যা অধ্যয়ন করা হয়েছে – অধীত
৪০) যিনি বক্তৃতা দানে পটু – বাগ্মী

১) কষ্টে অতিক্রম করা যায় যা – দুরাতিক্রম্য
২) The rose is a fragrant flower এর বাংলা – গোলাপ সুগন্ধি ফুল
৩) পত্রের গর্ভাংশ বলে – মূল বিষয়কে
৪) কে জানে দেশে সুদিন আসবে কিনা। বাক্যটি প্রকার করে – অনশ্চিয়তা
৫) প্রদীপ নিভে গেল। বাক্যটি – সাধারণ অতীত কালের
৬) আমার ভাইয়ের রক্তে রাঙ্গানো একুশে ফেব্রুয়ারি গানটির রচয়িতা – আঃ গাফফার চৌধুরী
৭) সংশয় এর বিপরীত – প্রত্যয়
৮) আরোহন এর বিপরীত – অবরোহণ
৯) সূর্য এর প্রতিশব্দ – আদিত্য
১০) জসীমউদদীন রচিত গ্রন্থ – সোজন বাদিয়ার ঘাট
১১) শুদ্ধ বাক্য – আজ কাল বানানের ব্যাপারে সব ছাত্রই অমনোযোগী
১২) শুদ্ধ বানান – আলস্য, ঘূর্ণায়মান
১৩) প্রতিশব্দ নয় – আগুন – কর, আনন্দ- দিপ্তী, বন- সরোজ
১৪) যে সত্য কথা বলে, তাকে সকলে বিশ্বাস করে এর সরল বাক্য – সত্যবাদীকে সকলে বিশ্বাস করে
১৫) সঠিক অর্থ সমূহ – হাতের পাঁচ- শেষ সম্বল, চাঁদের হাট- প্রিয়জন সমাগম, কাক নিদ্রা- অগভীর
নিদ্রা, শিরে সংক্রান্তি – আসন্ন বিপদ, একচোখা – পক্ষপাত দুষ্টু
১৬) দুর্দিনের যাত্রী গ্রন্থের রচয়িতা – কাজী নজরুল ইসলাম
১৭) বিদ্রোহী কবিতাটি কোন কাব্যের – অগ্নিবীণা
১৮) আবার আসিব ফিরে ধান সিঁড়িটির তীরে কোন কবির কথা – জীবনন্দ দাশ
১৯) মধ্যযুগের বাংলা সাহিত্যের শ্রেষ্ঠ কবি – ভারত চন্দ্র
২০) হরতাল – গুজরাটি শব্দ
২১) জাতীয় স্মৃতি সৌধের স্থপতি – সৈয়দ মঈনুল হোসেন
২২) সোজন বাদিয়ার ঘাট এর রচয়িতা – জসীম উদদীন
২৩) শরৎচন্দ্রের রচনা নয় – চোখের বালি
২৪) শুদ্ধ বানান – স্বায়ত্তশাসন
২৫) অপপ্রয়োগের দৃষ্টান্ত – একত্রিত
২৬) শকট শব্দের অর্থ – মাছ
২৭) শেষ লেখা কি জাতীয় রচনা – কাব্য
২৮) যে বিষয়ে কোন বিবাদ নেই – অবিসংবাদী
২৯) কাজলা দিদি কি – যতীন্দ্রমোহন বাগচী রচিত কবিতা
৩০) নীল দর্পন নাটক প্রকাশিত হয় – ঢাকা থেকে
৩১) মেঘনাদবধ কাব্য প্রকাশিত হয় – ১৮৬১ সালে
৩২) পদ্মাবতী কার রচনা – আলাওল
৩৩) ভানুসিংহ যার ছদ্মনাম – রবীন্দ্রনাথ ঠাকুর
৩৪) রবীন্দ্রনাথ নোবেল পান – ১৯১৩ সালে
৩৫) বাংলা উপসর্গ – অনা
৩৬) চন্ডীদাস যে যুগের কবি – মধ্যযুগ
৩৭) কলা দেখানো অর্থ – ফাঁকি দেয়া
৩৮) বেগম রোকেয়ার রচনা নয় – পদ্মনী
৩৯) প্রথম বাংলা পত্রিকা – দিকদর্শন
৪০) হাত চালাও মানে – তাড়াতাড়ি করা
৪১) কোন রচনার জন্য নজরুলের জেল হয় – আনন্দময়ীর আগমনে
৪২) বঙ্কিম এর বিপরীত –ঋজু

১) অপোগন্ড শব্দের অর্থ – অপ্রাপ্তবয়স্ক, অপদার্থ
২) বাবা – তুর্কি শব্দ
৩) বাজারে কাটা অর্থ – বিক্রি হওয়া
৪) বীরবল ছদ্মনাম – প্রমথ চৌধুরী
৫) সওগাত শব্দের অর্থ – উপহার
৬) ব্যাঘাত এর বিশেষণ – ব্যাহত
৭) ফুলদানি শব্দের দানি- র ভাষিক পরিচয়, – শব্দপ্রত্যয়
৮) বাংলা ভাষায় সনেট প্রবর্তন করেন – মধুসূদন দত্ত
৯) বিলাসী গল্পটি – শরৎচন্দ্রের
১০) সিডর – সিংহলি ভাষার শব্দ
১১) দোহারা শব্দের অর্থ – মোটাও নয়, রোগাও নয়
১২) অপপ্রয়োগের দৃষ্টান্ত – নির্ভরশীলতা
১৩) Barren শব্দরে অর্থ – ঊষর
১৪) অশুদ্ধ বানান – মরুদ্যান, আয়ত্ব
১৫) জঙ্গম শব্দের অর্থ – গতিশীল
১৬) পাঞ্জেরী কবিতাটি – ফররুখ আহমেদ এর
১৭) ক্ষুণ্নিবৃত্তি এর সন্ধিবিচ্ছেদ – ক্ষুধ+ নিবৃত্তি
১৮) বায়স শব্দের অর্থ – কাক
১৯) নজরুল ইসলাম সম্পাদিত পত্রিকা – লাঙ্গল
২০) কবর নাকটটি – মুনীর চৌধুরীর
২১) বাংলা উপন্যাসের জনক – বঙ্কিম চন্দ্র চট্টোপাধ্যায়
২২) সন্ধি ব্যাকরণের আলোচিত হয় – ধ্বনিতত্ত্বে
২৩) রাবণের চিতা বাগধারার অর্থ – চির অশান্তি
২৪) শিখা পত্রিকা কোন সংগঠনের – মুসলিম সাহিত্য সমাজ
২৫) কমলা কান্তের দপ্তর যে শ্রেণীর রচনা – প্রবন্ধ
২৬) বিজ্ঞান শব্দের বি উপসর্গের অর্থ – বিশেষ
২৭) আমার সন্তার যেন থাকে দুধে ভাতে এই প্রার্থনা – ঈশ্বরী পাটনীর
২৮) দশে মিলে করি কাজ বাক্যে দশে – কর্তৃকারকে ৭মী বিভক্তি
২৯) নজরুল কারাবরণ করেন – আনন্দময়ীর আগমনে কবিদার জন্য
৩০) বেগম রোকেয়ার রচনা – মতিচুর, পদ্মরাগ, অবরোধবাসিনী
৩১) স্বাধীনতা হীনতায় কে বাঁচিতে চায় কার কথা – রঙ্গলাল বন্দ্যোপাধ্যায়
৩২) বাংলায় টি.এস এলিয়টের কবিতা প্রথম অনুবাদ করেন – রবীন্দ্রনাথ ঠাকুর
৩৩) এ সাবানে কাপড় কাচা চলবে না এখানে সাবানে – করনে ৭মী
৩৪) জানালা শব্দটি – ফারসি শব্দ
৩৫) বাংলা ভাষার প্রথম সাময়িকী – দিক দর্শন
৩৬) ড. মুহাম্মদ শহীদুল্লাহর মতে বাংলা ভাষার উৎপত্তি – গৌড়ীয় প্রাকৃত থেকে
৩৭) বসন্তকুমারী নাটকের রচয়িতা – মীর মশাররফ হোসেন
৩৮) বাংলা সাহিত্যে ছন্দের যাদুকর – সত্যেন্দ্রনাথ দত্ত
৩৯) পড়েছি মোগলের সাথে খানা খেতে হবে এক সাথে। এর অর্থ – বিপদে পড়ে কাজ করা।

১) শুদ্ধ বানান – মুহুর্মুহু
২) যে পুরুষ বাচক শব্দের দুটি স্ত্রী বাচক শব্দ আছে – ভাই
৩) টীকা ভাষ্য বাগধারাটির অর্থ – দীর্ঘ আলোচনা
৪) পাথরে পাঁচ কিল বাগধারার অর্থ – প্রবল সৌভাগ্য
৫) বহুব্রীহি সমাস – দশানন
৬) পানির সমার্থক শব্দ – উদক
৭) কোথাও উন্নত কোথাও অবনত এককথায় – বন্ধুর
৮) যা লাফিয়ে চলে – প্লবক
৯) বিপদে মোরে রক্ষাকর এ নহে মোর প্রার্থনা – সরল বাক্য
১০) তার বয়স বাড়লেও বুদ্ধি বাড়েনি – সরল বাক্য
১১) মঙ্গল কাব্যের কয়টি অংশ থাকে – ৫টি
১২) মধুসূদন দত্ত রচিত পত্রকাব্য – বীরাঙ্গনা
১৩) রবীন্দ্রনাথ সুভাষ চন্দ্রকে উৎসর্গ করেন – তাসের দেশ
১৪) ঢাকা থেকে প্রকাশিত প্রথম গ্রন্থ – নীলদর্পন
১৫) চর্যাপদের পদগুলি টীকার মাধ্যমে ব্যাখা করেন – মুনি দত্ত
১৬) জহির রায়হানের রচনা – আরেক ফাল্গুন
১৭) নজরুল রচিত নাটক – ঝিলিমিলি
১৮) মুনির চৌধুরী রচিত কবর একটি – নাটক
১৯) পঞ্চতন্ত্র রচনা করেন – সৈয়দ মুজতবা আলী
২০) শ্রীকৃষ্ণকীর্তন কাব্য রচনা করেন – বড়ু চন্ডীদাস
২১) সমুদ্র শব্দের সমার্থক – পাথার
২২) ঐহিক এর বিপরীত শব্দ – পারত্রিক
২৩) নাটিকা কোন অর্থে স্ত্রীবাচক শব্দ – ক্ষুদ্রার্থে
২৪) দ্বিগু সমাস – চৌরাস্তা
২৫) যার চক্ষুলজ্জা নাই – চশমখোর
২৬) যা অবশ্যই ঘটবে – অবশ্যম্ভাবী
২৭) শুদ্ধ বানান – স্বায়ত্তশাসন
২৮) শুদ্ধ বানান – অগ্নিবীণা
২৯) ধর্মের ষাঁড় বাগধারার অর্থ – স্বার্থপর
৩০) একচোখা – পক্ষপাত দুষ্টু
৩১) বাংলায় স্বরবর্ণ -১১ টি
৩২) বাংলাদেশের রণসঙ্গীতের রচয়িতা – নজরুল ইসলাম
৩৩) বিষাদসিন্ধু যাঁর রচনা – মীর মশাররফ হোসেন
৩৪) চর্যাপদের কবির সংখ্যা – ২৩ জন
৩৫)সাহিত্যে যুগ সন্ধিক্ষণের কবি – ঈশ্বরচন্দ্র গুপ্ত
৩৬) চর্যাপদ আবিষ্কার করেন – হরপ্রসাদ শাস্ত্রী
৩৭) মধ্যযুগের কাব্যের একটি ধারা – মঙ্গল কাব্য
৩৮) মাত্রাহীন বর্ণ – ১০টি
৩৯) রোহিণী চরিত্রটি – কৃষ্ণকান্তের উইল উপন্যাসের
৪০) আমার সোনার বাংলা কবিতার প্রথম – ১০ লাইন জাতীয় সঙ্গীত
৪১) ষাট বছর পূর্ণ হওয়ার উৎসব – হীরক জয়ন্তী
৪২) ভুল সন্ধি বিচ্ছেদ – দু+ লোক= দ্যুলোক
৪৩) বাবা শব্দটি – তুর্কি
৪৪) হাসি দিয়ে ঘরটিকে ভরিয়ে রাখত সে। এখানে – দিয়ে হলো – অনুসর্গ
৪৫) বগুড়ার চিনিপাতা দই সুস্বাদু। বাক্যটির চিনিপাতা – করণ কারক
৪৬) সংবাদপত্র – মধ্যপদলোপী কর্মধারয় সমাস
৪৭) ভানুমতির খেল মানে – ভেলকিবাজি
৪৮) সকল ছাত্ররাই যথাসময়ে উপস্থিত হয়েছে – বচনের ভুল
৪৯) বাংলা গদ্যরীতির জনক – বিদ্যাসাগর
৫০) ছায়া হরিন যাঁর রচনা – আহসান হাবীব
৫১) সুসময়ের বন্ধু – বসন্তের কোকিল
৫২) সমুদ্র শব্দের সমার্থক নয় – অদ্রি
৫৩) অশুদ্ধ বানান – ভূল
৫৪) খদ্দর -গুজরাটি শব্দ
৫৫) সঠিক ণ এর ব্যবহার হয়েছে – তৃষ্ণা শব্দে
৫৬) জাতি+ অভিমান – জাত্যভিমান
৫৭) কোনটি প্রবন্ধ – কালান্তর
৫৮) ক্ষুদ্র অর্থে উপ ক্যবহৃত হয়েছে – উপসাগর শব্দে
৫৯) কন্যার সমার্থক শব্দ নয় – সহোদরা
৬০) বাহুল্যদোষে দুষ্টু শব্দটি – অধীনস্থ

Primary School Teacher Exam Suggestions

Search the site …


Leave a Reply

Your email address will not be published.

1 × three =