Mon. Jan 27th, 2020

দৈনিক শিক্ষা খবর

জাতীয় শ্রমিক লীগের সম্মেলনে সাধারণ সম্পাদক হিসেবে এগিয়ে আছেন সুলতান আহমেদ

নিজস্ব প্রতিবেদকঃ ৯ নভেম্বর শনিবার ঐতিহাসিক সোহরাওয়ার্দী উদ্যানে জাতীয় শ্রমিক লীগের সম্মেলন অনুষ্ঠিত হতে যাচ্ছে। দীর্ঘদিন পর সম্মেলনের তারিখ ঘোষণায় প্রাণচাঞ্চল্য ফিরেছে আওয়ামী লীগের ভ্রাতৃপ্রতিম এ সংগঠনে। ১৯৬৯ সালের ১২ অক্টোবর প্রতিষ্ঠা লাভ করে জাতীয় শ্রমিক লীগ। ২০১২ সালের ১৯ জুলাই শ্রমিক লীগের সর্বশেষ সম্মেলন হয়।

প্রায় সাত বছর পর অনুষ্ঠিত হতে যাওয়া এই সম্মেলনে নতুন কমিটিতে স্থান পেতে বিভিন্ন পর্যায়ে চলছে পদপ্রত্যাশীদের দৌড়ঝাঁপ। প্রতিদিনই সংগঠনটির বঙ্গবন্ধু এভিনিউয়ের কেন্দ্রীয় কার্যালয় ও ধানমণ্ডির সভাপতির রাজনৈতিক কার্যালয় থাকছে নেতাকর্মীদের পদচারণায় মুখর। সভাপতি ও সাধারণ সম্পাদক পদে কারা আসতে পারেন সে বিষয়ে তৃণমূলে চলছে বিস্তর আলোচনা। তারুণ্যনির্ভর, ত্যাগী ও স্বচ্ছ ভাবমূর্তির নেতৃত্ব চাচ্ছে দলের হাইকমান্ড। ফলে শ্রমিক লীগের শীর্ষ পদসহ আগামী কমিটি থেকে বাদ পড়তে যাচ্ছেন বয়সের ভারে ন্যুজ নেতারা। সেই সঙ্গে টেন্ডার ও চাঁদাবাজি এবং ক্যাসিনো পরিচালনার সঙ্গে প্রত্যক্ষ বা পরোক্ষভাবে জড়িত নেতাদের ঝেটিয়ে বিদায় করার প্রস্তুতি শুরু হয়েছে। পাশাপাশি অন্য দল থেকে এসে সংশ্লিষ্টদের ‘ম্যানেজ’ করে যারা বড় পদ বাগিয়ে নিয়েছেন- এমন বিতর্কিত নেতাদেরও জায়গা হবে না শ্রমিক লীগের নতুন কমিটিতে।

২০১২ সালের সর্বশেষ সম্মেলনে আওয়ামী লীগের ভ্রাতৃপ্রতিম সংগঠন জাতীয় শ্রমিক লীগের সভাপতি হিসেবে দায়িত্ব পান নারায়ণগঞ্জের শ্রমিক নেতা শুকুর মাহমুদ ও সাধারণ সম্পাদক হিসেবে আছেন জনতা ব্যাংক ট্রেড ইউনিয়নের নেতা সিরাজুল ইসলাম। এই সময়ে ৪৫টি সাংগঠনিক জেলার কমিটি করা হয়েছে। গণপ্রজাতন্ত্রী বাংলাদেশ সরকারের মাননীয় প্রধানমন্ত্রী ও বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের সম্মানিত সভানেত্রী দেশরত্ন জননেত্রী শেখ হাসিনার অত্যন্ত আস্থাভাজন শ্রমিক-কর্মচারীদের দাবী-দাওয়া ও অধিকার আদায়ের লক্ষ্যে নিরলসভাবে কাজ করে যাচ্ছেন। বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান এর আদর্শ বাস্তবায়ন ও জননেত্রী শেখ হাসিনার সকল কর্মসূচি সফল করার জন্য নিজেকে সর্বদা নিয়োজিত প্রখ্যাত শ্রমিকনেতা বাংলাদেশ পানি উন্নয়ন বোর্ড শ্রমিক কর্মচারী লীগ রেজিঃ নং বি -১৮৮৭ (সিবিএ)’র সাধারণ সম্পাদক ও জাতীয় শ্রমিক লীগের দুই বারের অর্থ বিষয়ক সম্পাদক জনাব সুলতান আহম্মদ আসন্ন জাতীয় শ্রমিক লীগের ত্রি-বার্ষিক সম্মেলনে সাধারণ সম্পাদক হিসেবে এগিয়ে আছেন। শ্রমিক লীগের কেন্দ্রীয় অর্থ বিষয়ক সম্পাদক সুলতান আহমেদ দ্বিতীয়বারের মতো কেন্দ্রীয় অর্থ বিষয়ক সম্পাদকের দায়িত্বে আছে। ইতিপূর্বে তিনি পানি উন্নয়ন বোর্ড সিবিএ’র সভাপতি ও সাধারণ সম্পাদকের দায়িত্ব পালন করেন। ৫৮ বছর বয়সী এ শ্রমিকনেতার জন্মস্থান মাদারীপুরের শিবচর।